bangla pdf booksInspirational tips+story

রিচার্জ your ডাউন ব্যাটারি pdf download jhonkar Mahbub

নাম:- রিচার্জ your ডাউন ব্যাটারি pdf

লেখক:- ঝংকার মাহবুব। 

রিচার্জ your ডাউন ব্যাটারি pdf প্রকাশনী:- আদর্শ। 

পৃষ্ঠা:-১১৯

রিচার্জ your ডাউন ব্যাটারি pdf সাইজ:- ১০এম্বি। 

ঝংকার মাহবুব ভাইয়ের  রিচার্জ your ডাউন ব্যাটারি pdf বইয়ের প্রথম কিছু অংশ:- 

আয়েশ আর অর্জন এক পথে চলে না:- আয়েশ আর অর্জন এক পথে চলে না

—এই আবির, এদিকে আয় ।

হুট করে নিজের নাম শুনতে পেয়ে পেছনে তাকায় আবির। দেখে মাসুম ভাই ডাকছে। অন্য কেউ ডাকলে ইগনাের করা যেত। কিন্তু মাসুম ভাই ডাকলে আর ইগনাের করার উপায় থাকে না। তাই অনিচ্ছা সত্ত্বেও পেছনে ফিরে এল সে। তখনই, মাসুম ভাই বলে উঠল- কিরে, এই হাতি-সাইজ একটা বডি নিয়ে বসে আছি তাও তাের চোখে পড়লাম না?

– না ভাই, মনটা খুব খারাপ।

– কেন, কেউ হেঁকা দিছে?

হ ভাই, ছেকা তত দিছেই। তবে সেটা কোনাে মেয়ে মানুষে না। বরং ছেকা দিছে রেজাল্টে। আমি স্টুডেন্ট হিসেবে খারাপ না। তারপরেও গত দুই সেমিস্টার ধরে রেজাল্ট আমাকে আনফলাে করে দিসে।

শুন, তুই ভাবছস তাের ট্যালেন্ট আছে। তবে ট্যালেন্ট দিয়ে সব হয়ে গেলে যে ফার্স্ট হয় তাকে ক্লাসে যাওয়া লাগত না। এক সপ্তাহ হাসপাতালে ঘােরাঘুরি করে ডাক্তার হওয়া গেলে, পাঁচ-ছয় বছর ধরে মােটা মােটা বই কেউ পড়ত না। তিন-চারবার ব্যর্থ হয়ে ছেড়ে দিলে, একটা বাংলাদেশের জন্ম হতাে না। দুনিয়ার কেউই শর্টকাটে সফল হতে পারে নাই। তুইও পারবি না।রিচার্জ your ডাউন ব্যাটারি pdf.  

আসলে দুনিয়াতে ট্যালেন্ট বলতে কিছু নেই। পরিশ্রমী পােলাপান দিনের পর দিন সাধনা করে যে দক্ষতা, যে জ্ঞান অর্জন করে, আইলসা পােলাপান সেটাকেই ট্যালেন্ট বলে। এই দেখ আমাদের ক্লাসের সুজন। সে দুই বছর ধরে রেজাল্টে লাচ্ছু মারছে। গত বছর ডিসিশন নিল, যে করেই হােক, ওভারঅল সিজিপিএ ৩,৩০-এর ওপরে তুলতেই হবে। তাই আগের লাইফস্টাইল ছেড়ে দিয়ে ধুমাইয়া পড়ালেখা শুরু করছে। স্মার্টফোন আর ইন্টারনেট বন্ধ রাখছে। 

শুধু রেগুলার ক্লাস, ঠিক সময়ে অ্যাসাইনমেন্ট, ক্লাস টেস্ট আর পরীক্ষার আগে সিরিয়াসলি পড়ে সেই লাড়ু-মার্কা সুজনই গত সেমিস্টারে পাইছে ৩.৪২। আর এই সেমিস্টারে পাইছে ৩.৫৭। ব্যস, কঠোর পরিশ্রম দিয়ে ট্যালেন্টের তকমা কিনে ফেলছে সে। রিচার্জ your ডাউন ব্যাটারি pdf download

অন্যদিকে আমাদের কলেজের মেরিটোরিয়াস স্টুডেন্ট ভার্সিটিতে গিয়েচার সাবজেক্টে রেজাল্ট খারাপ করে, ট্যালেন্টের মেডেল হারিয়ে ফেলছে। সাে, ট্যালেন্ট কিছু না। ট্যালেন্ট বলতে কিছু নাই । Only পরিশ্রম is real।

আজকের পর থেকে মেধা আছে, ট্যালেন্ট আছে, ব্যাকআপ আছে মনে করে ঘুমিয়ে থাকবি না। এগুলা সােজা, আগে কত করছি বলে ঢিলামি করতে যাবি না। পিছলামির কথা মাথায়ও আনবি না। তাহলে দেখবি অল্প কয়দিনেই তাের চাইতে কম ট্যালেন্টের পরিশ্রমী পােলাপানরা তােকে পেছনে ফেলে সামনে এগিয়ে গেছে।

মনে রাখবি, আয়েশ আর অর্জন এক পথে চলে না।

অলসতা সফলতার বন্ধু হতে পারে না। একটু বেশি আয়েশ করার নাম ভাঙিয়ে আলসেমি করতে যাবি না। ট্যালেন্টের দোহাই দিয়ে ফাঁকিবাজি করলে, অর্জন আসবে না। বরং অর্জন তােকে বর্জন করবে।

তাই শ্রম, সাধনা দিয়ে নিত্য নতুন ট্যালেন্টের তকমা জোগাড় করার জন্য ঝাপিয়ে পড়বি। তাহলেই ভালাে রেজাল্ট তােকে ফলাে করবে।

Hard work beats talent when talent doesn’t work hard.

-Tim Notke

রিচার্জ your ডাউন ব্যাটারি pdf এর :- শান্টিং না দিলে পানি ওপরে ওঠে না।

– কিন্তু মাসুম ভাই, যে সাবজেক্টটাতে বেশি খারাপ করছি, সেটা তাে অনেক কঠিন ছিল।

শুন, যে সাবজেক্টটা কঠিন বলে তুই রেজাল্ট খারাপ করছস; সেই একই সাবজেক্টে, তাের ক্লাসের অর্ধেকের বেশি পােলাপান ৫০-এর ওপরে মার্কস পেয়েছে। এই দেখ, গতকালকে বৃষ্টির কারণে, ঠাণ্ডার ভয়ে তুই ঘর থেকে বের হসনি কিন্তু সেই একই বৃষ্টিতে ভিজে, একই ঠাণ্ডায় কেঁপে কেঁপে, রিকশাওয়ালারা ঠিকই সংসার চালানাের টাকা কামিয়ে ঘরে ফিরেছে।

এই শহরে ঘুষ, অনিয়ম আর আমলাতান্ত্রিক জটিলতার কারণে অনেকেই বিজনেসে নামার স্বপ্নটা মাটিচাপা দিয়ে রাখে। অথচ এই একই শহরে তাদের পাশের ফ্ল্যাটের আরেকজন ঠিকই ব্যবসায় নেমে এগিয়ে যাচ্ছে।

সাে, সমস্যাটা সাবজেক্ট কঠিন হওয়া, শীতের ঠাণ্ডা বা আমলাতান্ত্রিক জটিলতার মধ্যে না; বরং সমস্যাটা তাের মধ্যে। শুন, যে মােবাইলে গেমস খেলার নেশা কমাতে চায়, সে সহজে গেমস খেলার নেশা ছাড়তে পারে না। যে পরের সেমিস্টারে দুনিয়া উল্টায় ফেলতে চায়, সে এই সেমিস্টারেও লাডু মারবে, পরের সেমিস্টারেও লাড়ু মারবে।রিচার্জ your ডাউন ব্যাটারি pdf. 

তাই গেমস খেলার নেশা ছাড়ার স্বপ্ন বাদ দিয়ে, আজকে দুপুরে লাঞ্চ শেষ করে সাথে সাথে মােবাইল খুলে গেমস খেলতে শুরু না করে, জোর করে ৫ মিনিট অপেক্ষা করবি। খেলতে চাইছস, তােবখেলবিই। তবে সারা দিন যেহেতু বাকি আছে। তাই ৫ মিনিট পরে শুরু করলেও তাের দুনিয়া উল্টে যাবে না। তবে এই যে ৫ মিনিট ইচ্ছা করে পেছানাের চেষ্টা করতেছস। এইটা হচ্ছে তাের নেশাকে কন্ট্রোলকরার ছােট্ট একটা স্টেপ। এই ছােট্ট স্টেপটা আজকেও ট্রাই করবি। রিচার্জ your ডাউন ব্যাটারি pdf download link !

আগামীকালকেও একই সিস্টেমে, জাষ্ট ৫ মিনিট নিজেকে কন্ট্রোল করার চেষ্টা করবি। জাই ৫ মিনিট। একইভাবে পরের সেমিস্টার পড়ে তালগাছে উঠায় ফেলার চিন্তা না করে, পরের সপ্তাহে সারা দিন বই নিয়ে পড়ে থাকার চিন্তা না করে, এমনকি আগামীকাল ঘুম থেকে উঠেই শুরু করে দেওয়ার চিন্তা না কর, আজকের দিনটায় ১ ঘন্টা সময় বের করার চেষ্টা কর। ইয়েস, আজকের দিনের মধ্যেই তােকে ১ ঘন্টা সময় বের করতে হবে। নট আগামীকাল, নই আগামী সপ্তাহ।

কারণ, যে পড়ালেখার জন্য আজকে ১ ঘন্টা সময় বের করতে পারবে না। সে পরের সপ্তাহে বা পরের সেমিস্টারেও ১ ঘন্টা বা চার ঘন্টাও বের করতে পারবে না। আর পুরা সেমিস্টার ফাটিয়ে ফেলা তাে দূরেরই কথা। সাে, যা করার আজকেই করতে হবে। আজকেই আজকের ক্লাসে যেটা পড়াইছে, সেটার জন্য ১ ঘন্টা করে করে সময় বের করে, আজকেই বােঝার চেষ্টা করতে হবে।

একটু খেয়াল করলেই বুঝতে পারবি; কে যুদ্ধ জয় করে না, একজন একজন করে শত্রুপক্ষের সৈন্যকে পরাজিত করে। কেউ সাগর পাড়ি নে না, বৈঠা মেরে মেরে, ইঞ্চি ইঞ্চি করে সামনে এগােতে থাকে। কেউ বিশ্বসেরা খেলােয়াড় হয় না, একটার পর একটা ম্যাচে, দুইএকটা করে গোল করতে থাকে। আসলে সফলতা কোনাে লটারি না। সফলতা আসমান থেকে ঝরে পড়া উষ্কাপিণ্ড না। সফলতা হছে কনসিসটেনসি (ধারাবাহিকতা)।

এই সিসটেনসি, রেজাল্ট বা আউটকামেরনসিসটেনসি না। এইটা চেষ্টার সিসটেনসি। লেগে থাকার সিসটেনসি। শুন,পানি যে পাত্রে রাখে সেই পাত্রের আকার ধারণ করে। চান্স পাইলেই গড়িয়ে নিচে নেমে যায়। আরও বেশি চান্স পাইলে নদীর স্রোতের সাথে ভেসে ভেসে বঙ্গোপসাগরে গিয়ে পড়ে। মানুষের চেষ্টাও পানির মতাে।Recharge your down bettary / রিচার্জ your ডাউন ব্যাটারি pdf 

রিলাক্স করার পাত্র খুঁজে পাইলে, সেই পত্রকে আলসেমির নিয়ে সারা দিন কাটিয়ে দেয়। তার রাস্তা খুঁজে পাইলে, সেই রাস্তা দিয়ে গড় গড় করে গড়িয়ে পড়ে। আবাজি, মান্তির স্রোত পইলে সেইবঘােতের টানে ফাকিবাজির বঙ্গোপসাগরে হারিয়ে যায়। তাই জনকে পানি পানি রবি না। Recharge your down bettary pdf download

রিলাক্স হবি না। রিলাক্যন্ট হৰি না। লম্বা টার্গেট সেট ৰ না; বরং নেক্সট স্টেপের দিকে তাকব। সেই হেট স্টেপগুলাে নিয়মিত দিতে থাকবি। দেখবি, ছোট ছোট স্টেপ, পনির পরে মতাে তের চেষ্টার পানিকে এক এক করে ওপরের দিকে নিয়ে যাচ্ছে। কোনাে কারণে কনফিডেন্স লুজ হয়ে গেলে সঙ্গে সঙ্গে বন্টু টাইট দিয়ে নিৰি। ফাঁকিবাজি মনে আসলে সঙ্গে সঙ্গে শটং দিয়ে নিৰি। কারণ পনিকে পাশ দিয়ে শান্টিং না দিলে পানি ওপরে ওঠে না। ঘােড়ার ওপরে উঠে ঘােড়াকে শান্টিং না দিলে ঘােড়া সামনে দেয় না।

এই একটু একটু করে ওপরে উঠতে থাকলেই থাকলেই, একসময় পাহাড়ের চূড়ায় পৌছে যাবি। তখন পাহাড়ের চূড়া বসে বসে তাের পায়ের নিচে শিস বাজাবে।

It always seems impossible until it’s done. -Nelson mandela

তাই আর দেরী না করে Recharge your down bettary pdf download / রিচার্জ your ডাউন ব্যাটারি pdf বইটি ডাউনলোড করতে নিচের ডাউনলোড এ ক্লিক করুন। 

Recharge your down bettary pdf / রিচার্জ your ডাউন ব্যাটারি pdf বইটির হার্ড কফি ক্রয় করুন:- 

Rokomari.com

Adarsha.com.bd

Boibazar.com

Scribd.com

Amazon.com    

বিঃদ্রঃ আপনি যদি একজন বই পড়ুয়ার পাশাপাশি রিভিউ রাইটার ও হন তাহলে নিচে কমেন্ট সেকশনে আপনার রিভিউটা লিখুন। আমি তা উপরে অ্যাড করে দেব আর আপনাকে ক্রেডিট ও দেওয়া হবে। ☺

অথবা নিচের ফর্ম টি পুরণ করে আমার কাছে আপনার রিভিউটি পাঠিয়ে দিতে পারেন।

Tags

ADR Dider

Best bangla pdf download, technologies tips,life style and bool, movie,smartphone reviews site.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close
Close

Ad blocker detected

Plz turn off your ad blocker to continue in this website...