bangla pdf books

দ্য ফাইভ টেম্পটেশনস অব এ সিইও pdf download (free)

নাম:- দ্য ফাইভ টেম্পটেশনস অব এ সিইও pdf download  

লেখক:-প্যাট্রিক লিঞ্চিওনির

দ্য ফাইভ টেম্পটেশনস অব এ সিইও বইয়ের প্রথম কিছু অংশ:- 

প্যাট্রিক লিঞ্চিওনি টেবিল এরুপের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি। টেবিল গ্রুপ একটি ম্যানেজমেন্ট কনসালটিং ফার্ম। এই ফার্মের কাজ এক্সিকিউটিভ টিমের উন্নয়নের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন নিশ্চিত করা। 

একজন পরামর্শদাতা ও মূল বক্তা হিসেবে তিনি বহু কোম্পানিতে সহস্র সিনিয়র এক্সিকিউটিভের সঙ্গে ক্যা করেছেন। ফরচুন ৫০০ এবং নতুন হাইটেক কোম্পানি থেকে শুরু করে বিশ্ববিদ্যালয়, দাতব্য প্রতিষ্ঠান সবার সঙ্গে কাজ কলেছেন।

তার সার্ভিস পেয়েছেন এমন কিছু হরপূর্ণ ক্লায়েন্ট হলাে : নিউ ইয়র্ক লাইফ, সাউথ ওয়েট এয়ারলাইনস, সামস কাৰ, মাইক্রোসফট, অলটেট, ভিসা, ফেডএক্স, দ্য ইউএস মিলিটারি একাডেমি, ওয়েস্ট পয়েন্ট।

সান ফ্রানসিস্কো শহরের উপকূলে প্যাট্রিক তার পরিবারসহ বাস করেন। পরিবারের সদস্যরা হলেন স্ত্রী লাওরা, তিন ছেলে- ম্যাথিউ, কন্নর ও ক্যাসি।

কোম্পানিতে সবচেয়ে জঘন্য ও আশ্র সমস্যায় জর্জরিত কর্মপরিবেশকে কীভাবে টিমওয়ার্ক দিয়ে পুনরায় সুস্থ স্বাভাবিক কর্মপরিবেশে রূপান্তর করতে হয়, তার এক অসাধারণ রূপকথার গল্প এ বই। 

বাংলাদেশের জনপ্রিয় জবসাইট ‘ প্যাট্রিক লিঞ্চিওনি টেবিল এরুপের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি। টেবিল গ্রুপ একটি ম্যানেজমেন্ট কনসালটিং ফার্ম। এই ফার্মের কাজ এক্সিকিউটিভ টিমের উন্নয়নের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন নিশ্চিত করা। 

একজন পরামর্শদাতা ও মূল বক্তা হিসেবে তিনি বহু কোম্পানিতে সহস্র সিনিয়র এক্সিকিউটিভের সঙ্গে ক্যা করেছেন। ফরচুন ৫০০ এবং নতুন হাইটেক কোম্পানি থেকে শুরু করে বিশ্ববিদ্যালয়, দাতব্য প্রতিষ্ঠান সবার সঙ্গে কাজ কলেছেন। 

তার সার্ভিস পেয়েছেন এমন কিছু হরপূর্ণ ক্লায়েন্ট হলাে : নিউ ইয়র্ক লাইফ, সাউথ ওয়েট এয়ারলাইনস, সামস কাৰ, মাইক্রোসফট, অলটেট, ভিসা, ফেডএক্স, দ্য ইউএস মিলিটারি একাডেমি, ওয়েস্ট পয়েন্ট। সান ফ্রানসিস্কো শহরের উপকূলে প্যাট্রিক তার পরিবারসহ বাস করেন। পরিবারের সদস্যরা হলেন স্ত্রী লাওরা, তিন ছেলে- ম্যাথিউ, কন্নর ও ক্যাসি।

কোম্পানিতে সবচেয়ে জঘন্য ও আশ্র সমস্যায় জর্জরিত কর্মপরিবেশকে কীভাবে টিমওয়ার্ক দিয়ে পুনরায় সুস্থ স্বাভাবিক কর্মপরিবেশে রূপান্তর করতে হয়, তার এক অসাধারণ রূপকথার গল্প এ বই।

বিডজবস ডট কম‘ -এর

সিইও’র কথা

সিইও বা প্রধান নির্বাহী হিসাবে গত ১৫ বছর নেতৃত্ব দিচ্ছি নিজের তৈরি বেশ কয়েকটি কোম্পানিতে। তারপরেও সিইও পদটির ভূমিকা বা কোম্পানির জন্য এর ক্ষমতার যথার্থ আর সঠিক প্রয়ােগ নিয়ে এখনাে মাঝে মাঝেই ধাঁধার মধ্যে পড়তে হয়।

তবে একটি জিনিস অভিজ্ঞতা থেকে শিখেছি, সিইও আসলে প্রতিষ্ঠানের কোনাে একটি বিশেষ পদবি নয় -এটি আসলে প্রতিষ্ঠানের একটি সত্ত্বা বা আইডেন্টিটি, একটি কালচার, একটি মাইন্ডসেট

ব্যক্তি হিসাবে একজন সিইও কী সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন, তার উপরে একটি কোম্পানির এই বছরের বা এই মাসের আর্থিক বা ব্যবসায়িক পারফরমেন্স নির্ভর করে না, কোম্পানির দীর্ঘ মেয়াদী সম্ভাবনা বা এর ব্যবসায়িক যথার্থতা (Feasibility) নির্ভর করে।

প্যাট্রিক লিঞ্চিওনির ‘The Five Temptations of A CEO’ / দ্য ফাইভ টেম্পটেশনস অব এ সিইও বইয়াতি পড়তে পড়তে এই কথাগুলােই মনে হচ্ছিল আর নিজের অভিজ্ঞতাগুলাে স্মৃতিতে ভেসে উঠছিল প্রতিটি টেম্পটেশন আমি নিজেও অনুভব করেছি। অনেক ক্ষেত্রে এর কোন কোনটির ফাঁদেও পড়েছি -তারপরে ফলাফলও ভােগ করেছি! 

হয়তাে  দ্য ফাইভ টেম্পটেশনস অব এ সিইও  বইটি আগে পড়লে ঐসব ভুলগুলাে এড়াতে পারতাম! বিশেষ করে প্রথম টেম্পটেশনের হাতছানি আমি প্রায় সময়ই অনুভব করি।

দ্য ফাইভ টেম্পটেশনস অব এ সিইও বইটি আক্ষরিক অর্থে সিইওদের জন্যে লিখিত হলেও জীবনের যেকোনাে পর্যায়ে একজন দক্ষ নেতা হয়ে দলকে নেতৃত্ব দিতে চান এমন যে কারাে কাজে লাগবে। আমি ভেঙে বলতে চাই না, তাতে পাঠকের রসভঙ্গ হবার সমূহ সম্ভাবনা রয়েছে।

এমন আরাে চারটি টেম্পটেশন বর্ণনা করেছেন তিনি সহজাত প্রাঞ্জল ভাষায়। তাঁর এই জাদুকরী ভাষার গুণে যে জ্ঞান আপনি মাত্র দু’ ঘণ্টায় অর্জন করবেন, হাজারাে গুগলিং করেও তা পাওয়া কঠিন। বাকি টেম্পটেশনগুলাে এখানেই বলে দিয়ে পাঠকের রাগত দৃষ্টির সম্মুখীন হওয়ার কোন অভিপ্রায় আমার নেই। তবে প্রতীকি উপায়ে কিছু বলার লােভ সামলাতে পারছি না।

ভাবুন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের কথা। বিশ্বকাপের গুরুত্বপূর্ণ একটি ম্যাচ হচ্ছে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে। ব্যাটিংয়ে শ্রীলঙ্কা। খেলার শেষ ওভার। তামিম আর মুশফিক গোঁ ধরে বসলেন এটি মােস্তাফিজুরকে দিয়ে করাতে হবে। মাশরাফি পড়ে গেলেন ভীষণ চিন্তায়। 

এরা দলের সিনিয়র ক্রিকেটার। এদের কথামতাে না চললে যদি তাদের কাছ থেকে জনপ্রিয়তা হারান। এদিকে আবার তামিম তার সঠিক ফিল্ডিং পজিশনে নেই। সরতে বললে যদি কিছু মনে করে! অন্যদিকে তাসকিন এবং রুবেল হােসেনেরও একটি করে ওভার বাকি আছে।

মাশরাফি ভাবতে শুরু করলেন। কাকে দিয়ে ওভারটি করালে ভালাে হয়? সর্বোৎকৃষ্ট সিদ্ধান্তটি কী হবে? ভাবছেন তাে ভাবছেন! ভাবনা আর শেষ হয় ! পূর্বের ওভারে কে কত রান দিয়েছে, কে শর্ট বল বেশি করেছে, কে ফিল্ডিং পজিশন অনুযায়ী বল করতে পারেনি…বিষম চিন্তা। পাশাপাশি আম্পায়ার তাগাদা দিচ্ছেন।

এদিকে ব্যাটিং অলরাউন্ডার মমিনুল ইসলামের কথাও ভাবছেন তিনি। ছেলেটা বাহাতে ভালাে স্পিন করে। পিচে বেশ ধরেছে স্পিন। ওদিকে শ্রীলঙ্কার ব্যাটসম্যান দু’জন আবার ডানহাতি। এমতাবস্থায় বাহাতি স্পিনাররা সুবিধা পাবে বেশি। কিন্তু সাকিবের ওভার শেষ। তাহলে কী করা যায়?

মমিনুলকে দিয়ে বল করালে সে যদি মার খায়, তাহলে তাে সবাই তার এই আনঅর্থোডক্স ক্যাপ্টেন্সি নিয়ে ধুয়ে দিবে! পাঠক, মাশরাফি কী রিস্কটা নিবেন?

এখানে আমি ক্রিকেট ম্যাচের আদলে যে পরিস্থিতি বর্ণনা করলাম, অনেকটা এই ধরনের দ্বিধা এবং প্রতিকূলতা সিইওদের নিত্যসঙ্গী। কীভাবে এসবের সম্মুখীন হয়ে একজন সফল, দূরদর্শী এবং নিষ্ঠাবান নেতা হতে হয় এই  দ্য ফাইভ টেম্পটেশনস অব এ সিইও বইটিতে তার স্পষ্ট দিকনির্দেশনা আছে।

প্যাট্রিক লিঞ্চিওনি সম্পর্কে আমার একটি মােহ বা বইয়ের শিরােনামের সাথে মিলিয়ে বলা যায় “টেম্পটেশন” কাজ করে। এটা অবশ্য  দ্য ফাইভ টেম্পটেশনস অব এ সিইও  বইয়ে বর্ণিত টেম্পটেশনগুলাের মতাে ক্ষতিকর নয়! এটি আমার মুগ্ধতার প্রকাশ। 

সম্পূর্ণ বাণিজ্যিক কাজে যুক্ত থেকেও কীভাবে তিনি সাহিত্যমান বজায় রেখে এমন অসাধারণ সব বই লিখে চলেছেন তা একটি বিস্ময়ের ব্যাপার বৈকি! এর আগে তার বহুল আলােচিত গ্রন্থ ‘The Five Dysfunction of A Team পড়ে আনন্দিত এবং উপকৃত হয়েছিলাম। 

সেখানে পড়েছিলাম দলবদ্ধভাবে কাজ করার সুবিধা-অসুবিধাসমূহ, আর এখানে পেয়েছি নেতৃত্বেও উন্নয়ন সম্পর্কিত বিশদ আলােচনা। ব্যাপারগুলাে সূক্ষ্ম এবং অধিকতর পর্যবেক্ষণ দাবী করে।

প্যাট্রিক লিঞ্চিওনি তার লব্ধ অভিজ্ঞতার কথা সবার কাছে পৌছে দেবার জন্যে বই লিখেছেন তার একেবারেই নিজস্ব গল্পবলার ভঙ্গিতে। তিনি লিখেছেন গল্প, নির্মাণ করেছেন চরিত্র, এনেছেন সাসপেন্স আর এসব কিছুই বর্ণিত হয়েছে কর্পোরেট লিডারশিপের মতাে আপাত দৃষ্টিতে মনে হওয়া ‘ববারিং’ বিষয়কে আবর্তিত করে। 

যা হবার কথাছিল গতানুগতিক কর্পোরেট টেক্সটবুক, তা পরিণত হয়েছে দুর্দান্ত গতিময় উপন্যাসে। তাই আপনি কর্পোরেট প্রতিষ্ঠানের সাথে যুক্ত হােন বা না হােন, স্রেফ সাহিত্যপ্রেমী হিসেবেও বইটি পড়তে পারেন। রস আস্বাদনে খুব একটা অসুবিধা হবে না।

দ্য ফাইভ টেম্পটেশনস অব এ সিইও বইটি পড়তে পড়তে মিশে গিয়েছিলাম কেন্দ্রীয় চরিত্র তরুণ সিইও এডু এবং তার অভিজ্ঞ পথ প্রদর্শনকারী চার্লি ও আরাে এক দল বুড়াের সাথে। এভুর অস্থির মন, চার্লির অভিজ্ঞ পরামর্শ, রাতের শহর, ট্রেনের প্রায় খালি কামরায় তাদের কথােপকথন ছিল দারুণ ইন্টারেস্টিং। 

প্যাট্রিক লিঞ্চিওনি একটি একটি করে নেতৃত্বের ক্রটি উল্লেখ করেছেন, আর  দ্য ফাইভ টেম্পটেশনস অব এ সিইও বইটি পেয়েছে নতুন গতি! গতি, চমক, বর্ণনা কুশলতা, এবং দুর্দান্ত ক্যারেকটার ডেভেলপমেন্টের কল্যাণে এক মুহূর্তও একঘেয়ে লাগে না। আর শেষটুকু তাে রীতিমত অপ্রত্যাশিত! হলফ করে বলতে পারি এর শেষটা আন্দাজ করতে পারবেন।

ফিকশন অংশটা যেমন আপনাকে শেখাবে, তেমন উপভােগও করতে পারবেন। নন-ফিকশন অংশটার গুরুত্বও কিন্তু কম নয়। এই অংশে অবশ্য সনাতন বর্ণনা ভঙ্গিই অনুসরণ করা হয়েছে। টেম্পটেশনগুলাের কাটাছেড়া করা হয়েছে নিখুঁত ভাবে। 

রয়েছে আত্মমূল্যায়ন অংশে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ কিছু প্রশ্ন এবং আলােচনা। রয়েছে সমস্যাগুলাের সংশয় এবং সনাক্তকরণের জন্য একটি কার্যকর মডেল।

যারা পূর্বে ‘দ্য ফাইভ ডিসফাংশনস অব এ টিম’ পড়েছেন, তাদের জন্যে। বাড়তি কিছু মজা রয়েছে বইটিতে। এই বইটির একদম শেষের দিকে আবির্ভূত হওয়া চরিত্র ক্যাথরিন আসলে কে, বলতে পারবেন? হ্যা, তাকে চেনা চেনা লাগাই স্বাভাবিক। এই ধাঁধাটি ভােলা থাকল আপনাদের জন্যে।

‘অন্যরকম প্রকাশনী’-কে ধন্যবাদ না জানলেই নয়। গতানুগতিক ধারার বাইরে, ভীড় ঠেলে সামনে দাঁড়িয়ে নতুন এবং অবশ্যই অন্যরকম কিছু করার চেষ্টার জন্য তারা সাধুবাদ পাওয়ার যােগ্য। বই প্রকাশ মানেই উপন্যাস বা কবিতা, এই ধারা ভঙ্গ করতে তারা নিরলস কাজ করে চলেছে।

প্র্যাকটিক্যাল লাইফে কাজে লাগে, এমন বইয়ের সংখ্যা বাংলা ভাষায় খুবই কম। সে অভাব পূরণ করতে তাদের প্রচেষ্টা প্রশংসার দাবীদার। প্যাট্রিক লিঞ্চিওনির বই এখানে হয়তাে বা গল্প-উপন্যাসের বইয়ের মতাে বেস্ট সেলার হবে না, তবে একটা নির্দিষ্ট পাঠকগােষ্ঠী বা কমিউনিটি তৈরি করতে সক্ষম হবে এই আশা করতেই পারি। 

অন্যরকম প্রকাশনী এবং প্যাট্রিক লিঞ্চিওনি এই জুটিটা দারুণ জমেছে। ভবিষ্যতে অন্যরকম প্রকাশনীর কাছ থেকে এমন আরাে কিছু বই আশা করছি।

ফাহিম মাশরুর

প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও

বিডিজবস ডট কম।

বাংলাদেশের জনপ্রিয় ই-কমার্স রকমারি ডট কম’-এর সিইও’র কথা 

প্যাট্রিক লিঞ্চিওনির ‘দ্য ফাইভ টেম্পটেশনস অব এ সিইও লিডারশিপ নিয়ে লেখা বিখ্যাত একটি বই। রকমারি ডট কম -এর মানবসম্পদ বিভাগে দায়িত্বরত ‘মােঃ মারুফ হাসান মনবীর’ খুব সহজ ও সাবলীল বাংলায় বইটির অনুবাদ করেছে।

এই  দ্য ফাইভ টেম্পটেশনস অব এ সিইও বইটির মুখবন্ধ লেখা বা লিডারশিপ নিয়ে কিছু লেখার মত নিজেকে যােগ্য মনে করি না। তবুও এখন পর্যন্ত আমার ক্যারিয়ারের অভিজ্ঞতা থেকে কিছু বিষয় শেয়ার করছি।

আমার ক্যারিয়ারের দীর্ঘতম অংশ ‘রকমারি ডট কম’ কেন্দ্রিক। ২০১২ সাল থেকে এখন পর্যন্ত রকমারিতে বিভিন্ন লেভেলের টিমের সাথে কাজ করার অভিজ্ঞতা হয়েছে। সেখান থেকে বলতে পারি, একটা কোম্পানি বা টিমের জন্য সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ হলাে এর মানুষগুলাে। আর লিডারের সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ কাজ হলাে এই মানুষগুলােকে ভালাে রাখা।

খুব সাধারণভাবে চিন্তা করলে একজন লিডার কয়েকজন টিম মেম্বারকে সাথে নিয়ে একটা টিমকে লিড দেন। টিমের কাজের জবাবদিহিতার দায়িত্ব থাকে লিডারের উপর, কিন্তু কাজগুলাে করতে হয় টিম মেম্বারদের সাথে নিয়ে। 

ভিন্ন ভিন্ন চিন্তা ভাবনার একাধিক মানুষ নিয়ে কোন একটা কাজ করা অনেক ক্ষেত্রেই লিডারের জন্য চ্যালেঞ্জিং মনে হয়। কিন্তু এই ভিন্নতাই একটা টিমের জন্য অনেক বড় একটা শক্তি।

একজন ভালাে লিডার টিমের জন্য নিজেকে অপ্রয়ােজনীয় করে তােলেন। তাকে ছাড়াই যেন টিম পূর্ণ শক্তিতে চলতে পারে সেভাবে পুরাে টিমকে তৈরি করতে হয়। কোনাে একটা সমস্যা নিজে সমাধান করার থেকে, টিম মেম্বারদের সমাধান করতে শেখান লিডারের জন্য বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

একটা টিমের জন্য লিডারকে সব সময়ই কাজ করে যেতে হয়। টিম কোনাে একটা কাজ শেষ করে ফেলতে পারে, কোনাে একটা লক্ষ্যে পৌছাতে পারে,।কিন্তু একটা টিমকে ডেভেলপ করা একজন লিডারের জন্য চলমান একটি কাজ।

‘অন্যরকম গ্রুপ থেকে আমরা অন্যরকম বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন দেখি। ‘রকমারি ডট কম’ও সেই একই পথে হাঁটছে। সুন্দর সুখী বাংলাদেশ গড়ার জন্য আমাদের ভালাে লিডার দরকার, যারা নিজেরা ভালাে থাকবে, আশেপাশের মানুষগুলােকে ভালাে রাখবে, বাংলাদেশকে ভালাে রাখবে।

খায়রুল আনাম রনি

সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও

রকমারি ডট কম To be continued……. 

তাই আর দেরী না করে  দ্য ফাইভ টেম্পটেশনস অব এ সিইও pdf download বইটি ডাউনলোড করতে নিচের ডাউনলোড বাটন এ ক্লিক করুন।              

দ্য ফাইভ টেম্পটেশনস অব এ সিইও pdf বইটির হার্ড কফি ক্রয় করুন। 

Rokomari.com |boibazar.com |boierduniya.com

Ittadishop.com

বইটির রিভিউ দিতে (ক্লিক_করুন)

Tags

ADR Dider

Best bangla pdf download, technologies tips,life style and bool, movie,smartphone reviews site.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close
Close

Ad blocker detected

Plz turn off your ad blocker to continue in this website...